slideshow 1 slideshow 2 slideshow 3

জামায়াতমুক্ত গ্রামবাংলা গড়ার শপথ নিউ ইয়র্কে

 জামায়াতমুক্ত গ্রামবাংলা গড়ার শপথ নিউ ইয়র্কে

 

লিক-. http://bangla.bdnews24.com/bangladesজামায়াতমুক্ত গ্রামবাংলা গড়ার শপথ নিউ ইয়র্কে/article762418.bdnews

অন্যন্য লিংক সমূহ-

1. http://khabor.com/?p=21423
2. http://www.hollywoodbangla.com/news/19096.html

 

3. http://www.bd-pratidin.com/2014/03/25/50553

 

আস্তিক-নাস্তিক বিতর্ক, ফারাবীর হুমকি, এবং অতপর ও পরিশিষ্ট

নাস্তিকদের ব্যাপার নিয়ে বাংলাদেশে অনেক আলোচনা- সমালোচনা হয়ে আসছে অনেকদিন ধরেই। নাস্তিকেরা বা ধর্মের সমালোচনাকারীরা আগে যেমন ছিলেন, এখনো আছেন। সম্প্রতি, অভিজিৎ রায়ের বইয়ের ব্যাপারে রকমারি ডট কম ও এর মালিক সোহাগকে ফারাবী শফিউর রহমান ডাইরেক্ট হুমকি দেয়ার পর, এই আস্তিক-নাস্তিক ইস্যুকে আবারও যেন সরগরম হয়ে উঠেছে।

দেখিস, একদিন আমরাও...

দেখিস, একদিন আমরাও...

বিমানে ভ্রমণ এবং আমার একটি ভয়াবহ অভিজ্ঞতা!

যাদের নিয়মিত বিমানে চড়তে হয়, শুধুমাত্র তারাই হয়তো বিষয়টা অনুভব করতে পারবেন। বিমানে চলাচল বেশ ঝুকিপূর্ণ হলেও ঝুকির পরিমাণ নিশ্চয়ই বাংলাদেশের দুরপাল্লার বাস জার্নির থেকে বেশ কম। বিমানে চড়ার মূল সমস্যা হচ্ছে দুরপাল্লার বিমান জার্নি খুবই বিরক্তিকর। এমনকি বিজনেস ক্লাসে হলেও সেটা বিরক্তিকর। বিমান ভ্রমণের দ্বিতীয় সমস্যা হিসাবে আপনি ঝুকির বিষয়টা আনতে পারেন। এক্ষেত্রে সমস্যা হচ্ছে, বাস দুর্ঘনা হলে বেঁচে থাকার সম্ভাবনাটা থাকে, কিন্তু বিমানে সেই সম্ভাবনা শূন্যের কোঠায়।

সবিতার সুবিচারের অধিকার এবং কিছু কথা

আজ ২৫শে ফেব্রুয়ারী UN Women এর ঘোষণা মতে “অরেঞ্জ ডে”। প্রতি মাসের ২৫ তারিখ নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধের জন্য বিশ্ব জুড়ে এই ক্যাম্পেইনের কর্মসূচি পালিত হয়।

আন্তর্জাতিক নারী দিবস ও পার্বত্য চট্টগ্রামে জুম্ম নারীদের নিরাপত্তা

আজ ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস। বিশ্বের দেশে দেশে নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে দিনটি পালন করা হয়ে থাকে।

“জামাত মুক্ত গ্রাম”

 

বোষ্টন বাংলা নিউজ

 

লেখক-হাসান মাহমুদ

প্রকাশক-আঃ হাকিম চাকলাদার

 

মঙ্গলবার, ০৪ মার্চ ২০১৪

বাপ্‌সনিউজ : “জামাত মুক্ত গ্রাম” কথাটা শুনলেই মনে হতে পারে কোন রূপকথার গল্প । গ্রামের প্রবেশমুখে সাইন বোর্ডটা আমারিকা-ক্যানাডাতেও নয়, চাঁদ-মঙ্গল গ্রহেও নয়, ওটা বাংলাদেশের গহন গহীনে কয়েকটা গ্রামের প্রবেশপথের গর্বিত উচ্চারণ !

‘বনলতা সেন’কে ঘিরে অনেক অমীমাংসিত রহস্য !!!


কবি জীবনানন্দ দাশ ও তার ‘বনলতা সেন’ কবিতা বাংলা সাহিত্যে একটি বহুল আলোচিত বিষয় । তার কাব্যে কারণে-অকারণে তরু-গুল্ম-লতা-পাতা ঝোপঝাড়ের এত বর্ণনা পাওয়া যায় যে তাকে কবি না বলে একজন অকৃত্রিম বনসংরক্ষক বা ফরেষ্ট গার্ড বলে ভ্রম হতে পারে। বাংলাভাষার কোন কবির সম্ভবত এত গাছপালার নাম-ধাম জানা নেই।

বসন্ত গোধুলীর সঙ্গীত

পেছনে একটা শব্দ হচ্ছে। মনে হল কেউ আমার পেঁছনে। আমার পিঠের কাছে। ঘুরে দাঁড়ালাম। পেছনে একটা ছোট্ট বুনোঝোপ ছাড়া আর কিছু দেখা গেলো না। ঝোপটা সুন্দর। কিছু কাটাগুল্মকে গর্ভাশয়ের মতো জড়িয়ে ধরে বেড়ে উঠেছে কিছু লতা। বাইরেটা সবুজ ভেতরটা সবুজের ছায়ায় অন্ধকার, প্রগাঢ় সবুজের মতো। অন্ধকারের রং কালো নয়, মানুষ হাজার বছর ধরে ভুল জেনে এসেছে। অন্ধকারের রঙ প্রগাঢ় সবুজ। ঝোপের গর্ভে সেই রঙ আমার চোখের সামনে স্পষ্টরূপে ফুটে আছে। সেই সবুজে আমি শব্দের উত্স অনুসন্ধান করছিলাম। আবার শব্দটা হল। ঠিক পেছনে। মানে উল্টো দিকে। আমার ঘাড়ের কাছে। অদ্ভুদ, অন্যরকম শব্দ। হিসসস নয়। শিস নয়। অনেকটা শিসের

নির্যাতিত সংখ্যালঘু বাউল সম্প্রদায়!

আমার মতে বাউল সম্প্রদায় একটি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়। তাই তারাও নিয়মিত শিকার হচ্ছে মৌলবাদী আক্রমণের। যেমন হিন্দু, বৌদ্ধ বা খৃষ্টানরা বাংলাদেশে সংখ্যালঘু? অনেক পার্থক্য সত্ত্বেও বাউলরাও তেমনই একটি সম্প্রদায়!

ডিএনএ কী? দ্বিতীয় পর্ব।গঠন

ডিএনএ কী?

কোথাও গনতন্ত্র নেই আজ

রক্তে লেখা ১৪ ফেব্রুয়ারি : পলাশ-শিমুলের লাল-দ্রোহে সাজা বাংলা-বসন্ত কোথায়?

বসন্ত এসে দোল দেয়। তারুণ্য দোলে। বসন্ত জাগায়। তারুণ্য জাগে। স্বয়ং ইতিহাস স্বাক্ষী। ইতিহাস ২১ ফেব্রুয়ারি ১৯৫২। তারুণ্য ফাগুনের গায়ে আগুন মেখে রক্তে লিখেছিল 'ভাষা দিবস'। ইতিহাস ১৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৮৩। এবার 'স্বৈরাচার প্রতিরোধ দিবস'। 'ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ'। রাজপথ। বাংলাদেশ। বিশ্ববেহায়া এরশাদের জলপাইরঙ উর্দি। ক্যাম্পাসে ক্যাম্পাসে আর্মি। বেয়নেট-মেশিন গান-মর্টার-বুলেট। চলন্ত প্রাণ হঠাৎ নিথর! তারুণ্য মানে যেন বহু বসন্ত-বিপ্লব। এক ফাগুনে সালাম-বরকত-রফিক-জব্বার, আরেক ফাগুনে জাফর-জয়নাল-দিপালী-কাঞ্চন!

দিনটি হোক বীথির জন্য !

প্রিয় বীথি,

তোমার পুরো নামটা আমি ভুলে গেছি। আরও ভুলে গেছি তোমার চেহারা, শুধু মনে আছে তোমার বয় কাট চুলের কথা আর লাল রঙয়ের একটা জেট প্লেন। তোমার কথাও যে খুব একটা মনে আছে তা না, শুধু মনে আছে তুমি একটা শান্ত এবং নীরব মেয়ে। পঞ্চম শ্রেণীর ফাইনাল পরীক্ষার শেষ দিনে তোমার সাথে গোল্লাছুট খেলা, আরেকটা স্মৃতি যা এখনো ভুলি নি। তোমাকে এই চিঠি লেখার কথা ছিল ২০০১ সালে কিন্তু তখন সাহস পাইনি, আজ কেন যেন অনেক করে তোমার কথা মনে হতে থাকায় এই চিঠি লিখতে বসলাম।

নদীর প্রলাপ

ভাবতেছিলাম নদী নিয়ে একটা কবিতা লিখব। অনেক কবিই নদী নিয়ে কবিতা লিখেছেন হয়তোবা। আমি কবি নই তবু ইচ্ছা বলে কথা। জীবনানন্দ লিখেছেন, ‘ধানসিঁড়ি নদীর কিনারে একদিন শুয়ে রব পৌষের রাতে. . .’। এই কবিতা কি নদী নিয়ে লেখা? নদী এই পৃথিবীর আরেক বিস্ময়। ছোট্ট তীলাই নদী খিয়ার মাটি খুড়ে নৃত্য ভঙ্গিতে দক্ষিন দিকে নেমে যায় প্রান্তর ফাঁকি দিয়ে। আর তার ছোট্ট শরীরে বিশাল আকাশের ছবি ভেসে ওঠে। আকাশ কত বিশাল! যাকে প্রায় আড়াল নেয়া যায় না। তবু আকাশ দেখলে উড়তে ইচ্ছা করে না। কিন্তু নদী দেখলেই নামতে ইচ্ছা করে। এই কি নদীর মায়া? মায়া কি নদীর শক্তি?

Pages